NarayanganjToday

শিরোনাম

অর্থ কষ্টে হাসপাতাল ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন খোরশেদ!


অর্থ কষ্টে হাসপাতাল ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন খোরশেদ!

অর্থ সঙ্কট থাকায় করোনামুক্ত না হয়েই হাসপাতাল ছাড়তে হয়েছিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদকে! আর্থিক দিক বিবেচনা করে তিনি বাধ্য হন হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি চলে আসতে।

একটি বেসরকারি টেলিভিশনের অনলাইন ভার্সনকে এমন তথ্যই জানিয়েছেন দেশজুড়ে আলোচিত হওয়া ‘সুপার হিরো’ কাউন্সলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। ৫ জুন তিনি এবং ৬ জুন তার স্ত্রী আফরোজা খন্দকার লুনা রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরেন।

তাদের দুজনের মধ্যে লুনা করোনামুক্ত হলেও খোরশেদের করোনা পজিটিভ ছিল। তারা দুজন ৩১ মে ওই হাসপাতালটিতে ভর্তি হয়েছিলেন।

ওই গণমাধ্যমকে খোরশেদ জানিয়েছেন, ৩১ মে আমি এবং আমার স্ত্রী স্কয়ার হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি হই। আমি হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে খুবই সন্তুষ্ট। আমার স্ত্রীর অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। ওখানে ভর্তি না হলে কী হতো তা আমি জানি না। হাসপাতাল আমাদের পর্যাপ্ত চিকিৎসাসেবা দিয়েছে।

তিনি বলেন, সমস্যা হচ্ছে আমি আর পেরে উঠছিলাম না। ভর্তির পর থেকে আমাদের দুজনের চিকিৎসায় বিল এসেছে ছয় লাখ ৭৫ হাজার টাকা। এই টাকার বাইরে খরচ করার ক্ষমতা আমার নেই। তাই হাসপাতাল থেকে চলে এসেছি। কিন্তু আমার আরও কয়েকদিন থাকা উচিত ছিল। অন্তত প্রথম দফায় নেগেটিভ আসা পর্যন্ত।

কাউন্সিলর বলছিলেন, আমার এবং আমার স্ত্রীর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার ফলাফলে আমার করোনা পজেটিভ এলেও আমার স্ত্রীর নেগেটিভ আসে। কিন্তু আমার শরীরের অবস্থা খুব ভালো বলে ডাক্তাররা জানিয়েছেন। সেজন্য আমি চিকিৎসকদের অনুরোধ করেছিলাম যাতে আমাদের ছাড়পত্র দেওয়া হয়। শুক্রবার আমি চলে এসেছি।

প্রসঙ্গত, করোনা পরিস্থিতিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে কিংবা উপসর্গ হয়ে মৃত্যু বরণ করা ব্যক্তিদের মরদেহ সৎকারে যখন আত্মীয় স্বজন প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসছিলেন না তখন খোরশেদ একটি স্বেচ্ছাসেবী টিম করে একের পর এক মরদেহের সৎকার করে গেছেন। এ ক্ষেত্রে হিন্দু মুসলিম কিছুই তিনি বাছেননি। অনেক হিন্দুর শেষকৃত্যের সময় তিনি মুখাগ্নিও করেছেন। এ কারণে তাকে বীর বাহাদু, করোনা হিরো, সুপার হিরো হিসেবেও অনেকে উল্লেখ করেন। দেশ বিদেশের বড় বড় গণমাধ্যমগুলো তাকে নিয়ে আর্টিক্যালও প্রকাশ করে।

৭ জুন, ২০২০/এসপি/এনটি

উপরে