NarayanganjToday

শিরোনাম

যেখানে সমস্যা সেখানেই সমাধান হবে : সেলিম ওসমান


যেখানে সমস্যা সেখানেই সমাধান হবে : সেলিম ওসমান

বঙ্গবন্ধু জন্মশত বার্ষিকী একটু আলাদা উল্লেখ করে সাংসদ সেলিম ওসমান বলেছেন, এ বছরটাকে মুজিব বর্ষ ঘোষণা করা হয়েছে। যেকোনো ভালো কাজ করতে গেলে সমস্যা আসবেই। যেখানে সমস্যা থাকবে সেখানেই সমাধান হবে। বাধা, সমস্যা আসবেই। এ জন্যই সবার সহযোগিতা চাই। বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বাষির্কীটা স্মরণীয় করে রাখার মত পালন করতে চাই।

শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টায় বন্দর খেয়াঘাট সংলগ্ন সুরুজ্জামান টাউয়ারের রাত্রি কমিউনিটি সেন্টারে মত বিনিময়কালে ওই কথা বলেন। জাতির জনকের জন্মশত বার্ষিকী পালন উপলক্ষে বন্দর থানাধীন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ এবং মাদরাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষিকা মন্ডলী ও পরিচালনা পর্ষদের নেতৃবৃন্দদের সাথে এই মতবিনময় করেন তিনি।

সাংসদ সেলিম ওসমান বলেন, ভবিষ্যত প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানাতে হবে। ভবিষ্যত প্রজন্ম তৈরী হচ্ছে। দেখা যাবে ভবিষ্যতে আমরাই তাদের সাথে কথা বলতে গিয়ে হিমশিম খাবো। এখন যারা ৪০ ঊর্ধ্ব আছেন তারা অনেকেই বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানেন না। ৭৫-এর পর ২৫টি বছর বঙ্গবন্ধুকে ইতিহাস থেকে মুছে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, জামায়াতে ইসলামীর লোকজন তাদের লোকজনদের বিভিন্ন কলেজ মাদরাসায় পড়িয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে তাদের বসিয়ে রেখেছে। তারাই হয়তো আশেপাশেই আছে, সমস্যা করার চেষ্টা করবে। স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের সাথে অত্যন্ত সুসম্পর্ক রয়েছে। আমি ডাকলে ওরা অবশ্যই আসবে। কিন্তু সমস্যার কথা বলে যদি আপনারা নিজেদের গুটিয়ে রাখেন তাহলে জামায়াতের সাথে আপনাদের তফাৎ কোথায়।

সাংসদ বলেন, বঙ্গবন্ধু কোনো দলের নয়। আওয়ামী লীগ বিএনপি কিংবা জাতীয় পার্টি কারোরই না। তিনি হচ্ছেন বাঙালি জাতির পিতা। তাকে যেন ভবিষ্যত প্রজন্ম জানতে পারে সে ব্যবস্থা আমাদেরকেই করতে হবে। 

তিনি বলেন, আমরা বন্দরে বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী পালন করে সারা বাংলাদেশকে জানাতে চাই, নারায়ণগঞ্জ বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সৈনিকের নারায়ণগঞ্জ, এই নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের জন্মস্থান, এই নারায়ণগঞ্জ প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের বাস্তবায়নে অগ্রনী ভূমিকা পালন করা নারায়ণগঞ্জ।

বন্দর উপজেলার সভাপতি এম.এ রশিদ এর সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের, মহানগর জাতীয় পার্টির আহবায়ক ও বন্দর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান সানাউল্লাহ সানু, ভাইস চেয়ারম্যান ছালিমা বেগম শান্তা, বন্দর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শুক্লা সরকার, বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আ.ক.ম নুরুল আমিন, ধামগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মেদ, কলাগাছিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন প্রধান প্রমূখ।

২৯ ফেব্রুয়ারি,২০২০/এমএ/এনটি

উপরে