NarayanganjToday

শিরোনাম

ইপিজেডে কাস্টমস কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ


ইপিজেডে কাস্টমস কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

সিদ্ধিরগঞ্জে অবস্থিত রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ এলাকা আদমজী ইপিজেডের কাস্টম অফিসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা সোলায়মান শাহেদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম ও দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ জানিয়ে কাস্টম গেইটের বাইরে অবস্থান নিয়েছে প্রায় দুইশত বিক্ষুব্ধ সিএনএফ কর্মকর্তা ও বিভিন্ন কারখানার প্রতিনিধিরা। 

সোমবার সকালে এবং দুপুরে দুই দফায় এ অবস্থান কর্মসূচী পালন করে অভিযোগকারীরা। পরে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের আশ^াস দিলে অবস্থানকারীরা নিজ কর্মস্থলে ফিরে যায় বলে জানান ইপিজেড এলাকায় দায়িত্বরত বেপজার জি.এম মোঃ আহসান কবির।

কাষ্টম অফিসের সামনে অবস্থান নেওয়া সিএনএফ এবং বিভিন্ন কারখানার প্রতিনিধিরা জানায়, প্রায় ১ বছরের কাছাকাছি সময় ধরে কাস্টম অফিসে সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করছেন সোলায়মান শাহেদ। শুরু থেকেই প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে গেলে তিনি সময় ক্ষেপন করেন। বিনিময় হিসেবে অনেক সময় অর্থ দাবি করেন। তাছাড়া বিভিন্ন কারখানায় সাপ্লাইয়ারদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র আনা-নেওয়ার সময় সে অর্থ ছাড়া কাউকে গ্রাহ্য করেননা। ট্রাকে করে মালপত্র আনা-নেওয়া করতে গাড়ির চালকদেরও অর্থ প্রদান করতে হয় এই রাজস্ব কর্মকর্তাকে। দিনদিন বাড়ছে তার এই অপকর্মের মাত্রা। বর্তমান করোনা মহামারীতেও তিনি নিজেকে সামলাতে পারছেন না। 

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সাপ্লায়ার (বিভিন্ন কারাখানায় প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহকারী) ব্যবসায়ী সোলায়মান শাহেদের আর্থিক লেনদেনের বিষয়টি সত্য বলে জানান। 

বেপজার জি.এম আহসান কবির জানান, অভিযোগকারীর সব অভিযোগ সত্য না। কাস্টম অফিসের কাজের ক্ষেত্রে করোনা সংক্রমণ রোধে দুরত্ব নিশ্চিত করাকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে দ্বন্দের সৃষ্টি হয়। আমরা তাদের আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি করবো। বর্তমানে সবাই সবার কর্মস্থলে ফিরে গেছে। 
 

উপরে