NarayanganjToday

শিরোনাম

বন্দ‌রে অ‌মিত হত‌্যায় শাহ পরান রিমা‌ন্ডে


বন্দ‌রে অ‌মিত হত‌্যায় শাহ পরান রিমা‌ন্ডে

বন্দরে পূর্ব শক্রতার জের ধরে অমিত দাসকে হত্যার অপরাধে শাহ পরানকে ১ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

রোববার (১৪ জুন) সকালে নারায়নগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল মাজিস্ট্রেট ফাহমিদা খাতুনের আদালত এই রিমান্ড মঞ্জুর করে আদেশ দেন। এর আগে পুলিশ মামলার সুষ্ঠ তদন্তের জন্য ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে উঠালে ১ দিন মঞ্জুর করেন বিচারক।

রিমান্ডকৃত আসামি শাহ পরান (২০) বন্দর থানার বাবুপাড়া এলাকার মো. মজিবুরের ছেলে।

রিমান্ডের সত্যতা নিশ্চিত করে কোর্ট পুলিশের ইন্সপেক্টর আসাদুজ্জামান বলেন,মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য পুলিশ আসামী শাহ পরানকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে উঠালে ১ দিন মঞ্জুর করেন বিচারক।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (১২ জুন) সন্ধ্যায় বন্দরের আমিন ২নং গলির বাসিন্দা ১৬ বছর বয়সী অমিত দাস তার বন্ধুদের সাঙ্গে শীতলক্ষ্যা নদীতে গোসল করতে যায়।সে সময় পূর্ব শক্রতার জের ধরে উক্ত আসামি ও অন্যান্য আসামিরা হত্যার উদ্দেশ্যে ধারলো অস্ত্র দিয়ে অমিত দাস (১৫) ও তার দুই বন্ধু শান্ত (১৫) ও রাব্বিকে (১৬) এলোপাথারীভাবে আঘাত করে গুরুত্বর জখম করে। সে সময় তারা আসামিদের হাত থেকে বাঁচার জন্য ঘটনাস্থল থেকে বলগেট জাহাজে উঠে। সেখানেও আসামিরা তাদেরকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে ধাওয়া করে নদীতে ফেলে দেয়। পরবর্তীতে বাদীর ছেলের দুই বন্ধু শান্ত ও রাব্বি সাতার কেটে নদীর পাড়ে উঠতে পারলেও অমিত দাস উঠতে পারেনি। খরব পেয়ে আত্মীয়স্বজন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের মাধ্যেমে শীতলক্ষ্যা নদীতে লাশ খোঁজাখুজি করে রোববার (১৪ জুন) সকাল ৮ টার সময় মোক্তারপুর শাহ সিমেন্ট ফ্যাক্টরীর সামনে নদীতে ভাসমান অবস্থায় অমিত দাসের মৃতদেহ পাওয়া যায়।উদ্ধারের পর মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

উপরে