NarayanganjToday

শিরোনাম

ত্রাণের দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের বিক্ষোভ


ত্রাণের দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের বিক্ষোভ

সিদ্ধিরগঞ্জে বেতন ভাতা ও ত্রাণের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া পরিবহন শ্রমিকরা। 

রোববার বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর ব্রীজের পশ্চিম ঢাল এলাকায় দুই প্রায় শতাধিক পরিবহন শ্রমিক প্রায় আধঘন্টা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এতে সড়কের উভয় দিকে যানবাহন আটকে পড়ে। 

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা এসে শ্রমিকদের বুঝিয়ে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দিলে পুণরায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।
 
বিক্ষুব্দ শ্রমিকরা জানায়, করোনা ভাইরাসের কারণে সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী প্রায় দেড় মাস ধরে যাত্রী পরিবহন বন্ধ রয়েছে। এতে আমরা দুই-আড়াইশ শ্রমিক উপার্জনহীন হয়ে মা-বাবা, স্ত্রী ও ছেলে-মেয়ে নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছি। সরকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষকে ত্রাণ সামগ্রীসহ আর্থিক সহযোগিতা করছে, কিন্তু আমরা কোন সহযোগিতা পাচ্ছি না। আমরা আমাদের মালিকসহ শ্রমিক নেতাদের দ্বারস্থ হলেও তারা কোন সাড়া দিচ্ছে না। তাই নিরুপায় হয়ে রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছি। সরকারের কাছে আমাদের দাবি, যেন আমাদের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়ায়। বাসায় অভুক্ত স্ত্রী ছেলে-মেয়ের মুখের দিকে তাকালে খুব কষ্ট লাগে। সবাই আমাদের রক্ত চুষে খায় কিন্তু আমাদের দঃসময়ে কেউ পাশে নেই।
 
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক জানান, ত্রাণের দাবিতে পরিবহন শ্রমিকরা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছিল। পরে আমরা শ্রমিকদের বুঝিয়ে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দিলে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়। তিনি বলেন, এর আগেও আমি কিছু শ্রমিকদেরকে খাদ্য সামগ্রী দিয়েছিলাম, দেখি তাদের জন্য কিছু করতে পারি কিনা। 

 

উপরে