NarayanganjToday

শিরোনাম

ফতুল্লায় দুই কমিউনিটি সেন্টারকে জরিমানা, ওয়াজ বন্ধ


ফতুল্লায় দুই কমিউনিটি সেন্টারকে জরিমানা, ওয়াজ বন্ধ

ফতুল্লায় পৃথক দুইটি কমিনিউটি সেন্টারে অভিযান চালিয়ে ৫৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় দুটি কমিনিউটি সেন্টারেই বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিলো। এছাড়াও ফতুল্লার পৃথক দুই এলাকায় ওয়াজ মাহফিল বন্ধ করে দেয় ভ্রাম্যমান আদালত।

শুক্রবার (২০ মার্চ) বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহি কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিকের নেতৃত্বে এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়।

নাহিদা বারিক জানান, করোনার বিস্তাররোধে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে সভা-সমাবেশ ও গণজমায়েতের ওপর। সরকারের এই নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে অভিযানের অংশ হিসেবে ফতুল্লা বাজার ও পাগলা বাজার এলাকায় অবস্থিত দুটি কমিনিউটি সেন্টার বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে দুটি কমিনিউটি সেন্টারের মালিকের কাছ থেকে ৫৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। এসময় দুটিতেই বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিলো। ওই অনুষ্ঠানে আসা সকল অতিথিকে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে সচেতন করাসহ সরকারের দিক নির্দেশনা মেনে চলার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এদিন উপজেলার কাশিপুর ইউনিউনের পৃথক দুটি এলাকায় চলমান ওয়াজ মাহফিল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা অংশ নেন।

এদিকে একটি সূত্র জানায়, ফতুল্লার একটি কমিউনিটি সেন্টারে জনৈক সাংবাদিকের মেয়ের বিয়ে হচ্ছিল। বিয়েটি বেশ কয়েক মাস আগেই সময় নির্ধারণ করা হয়। সে মোতাবেক এদিন এখানে আনুষ্ঠানিকতার আয়োজন করা হয়। বিষয়টি ভ্রাম্যমান আদালতকে জানালেও সেটি কর্ণপাত করা হয়নি। ফলে কমিউনিটি সেন্টারের মালিককে ১০ হাজার এবং বিয়ের আয়োজক জনৈক সাংবাদিককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমান আদালত। এ নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

তারা আক্ষেপ করেন বলেন, বিয়েটি বেশ কয়েক মাস আগেই এই দিন নির্ধারণ করা হয়। যার কারণে পিছানো সম্ভব হয়নি। অথচ শহরের বিভিন্ন কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ে হচ্ছে দেদারছে, সেসব নিয়ে কোনো মাথা ঘামাচ্ছে না প্রশাসন। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।

২০ মার্চ, ২০২০/এসপি/এনটি

উপরে