NarayanganjToday

শিরোনাম

বিশাল মিছিলসহ আল্লামা শফির মঞ্চে শ্রমিক লীগ নেতা পলাশ


বিশাল মিছিলসহ আল্লামা শফির মঞ্চে শ্রমিক লীগ নেতা পলাশ

আহমদীয়া মুসলিম জামাতকে (কাদিয়ানী সম্প্রদায়) রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবিতে আয়োজিত মহাসমাবেশ মঞ্চে উঠেছেন জাতীয় শ্রমিক লীগ নেতা কাউসার আহম্মেদ পলাশ।

শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) শহরের ঈদগাহ মাঠে দুপুর দেড়টায় মজলিসে তাহাফ্ফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সমাবেশ মঞ্চে বিকেলে পলাশ মঞ্চে উঠেন এবং দাবির স্বপক্ষে বক্তব্য রাখেন।

এর আগে আলীগঞ্জ মাঠ থেকে সহস্রাদিক লোক নিয়ে আহমদীয়া মুসলিম জামাতকে (কাদিয়ানী সম্প্রদায়) রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবিতে একটি মিছল বের করেন শ্রমিক লীগের ওই নেতা। পরে মূল সমাবেশস্থলে এসে তিনি যোগদান করেন।

এদিকে সমাবেশকে কেন্দ্র করে যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয় সে জন্য শহরের বিভিন্ন সড়কসহ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে সতর্ক অবস্থায় রয়েছে আইন শৃঙ্খলা-বাহিনীর সদস্যরা। আহমদীয়া মুসলিম জামাতের মসজিদের নিরাপত্তা বসানো হয়েছে পুলিশি প্রহরা।

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে চাষাড়াসহ বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে বাঁশের লাঠি হাতে অবস্থান নিয়েছে মজলিসে তাহাফ্ফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার কর্মীরা।

বক্তব্যে পলাশ দাবি করেছেন, কাদীয়ানিরা দাবি করে নবীর পরে নবী আছে। কিন্তু নবীর পরে আর কোনো নবী নাই। যারা এমন দাবি করে তার মুসলিম হতে পারে না। এমন কথা বলে তারা আমাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ করেছে। আমরা রাষ্ট্রীয়ভাবে এই কাদীয়ানিদের অমুসলিম ঘোষণা দাবি জানাচ্ছি।

প্রধান বক্তা হিসেবে হেফাজতে ইসলামের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফিসহ আরও বক্তব্য রাখবেন হেফাজতে ইসলামীর মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী, হেফাজতে ইসলামীর ঢাকা মহানগরের সভাপতি নূর হোসাইন কাশেমী, সাইদুর রহমান, আব্দুল হামিদ, আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী, মিজানুর রহমান চৌধুরী, নূরুল ইসলাম জিহাদী, আবদুল্লাহ মুহাম্মদ হাসান, জুনায়েদ আল হাবীব, ইমাদুদ্দীন, আবদুল বারী, আশরাফ আলী, আবদুল কুদ্দুস, তাফাজ্জুল হক, নূরুল ইসলাম ওলিপুরী, মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, আশেকে এলাহী, আব্দুল হাই মেশকাত, মুহাম্মদ ইসহাক, মামুনুল হক, নজরুল ইসলাম কাশেমী, ওবায়দুর রহমান খাঁন নদভী, মাহবুবুল হক কাশেমী, শফিকুল ইসলাম, আবদুল আউয়াল, আবদুল কাদির, আবু তাহের জিহাদী প্রমূখ।

এই সম্মেলনকে সফল করতে আয়োজকরা স্থানীয় সংসদ সদস্য, রাজনীতিবিদদের সাথে বৈঠকের পাশাপাশি বিভিন্ন এলাকায় সমাবেশ করেছেন। এছাড়া বিভিন্ন স্থানে মাইকিংও করা হয়েছে। তাদের এই সম্মেলনকে ঘিরে নারায়ণগঞ্জে বসবাসরত আহমদীয়া সম্প্রদায়ের পরিবারগুলোর মধ্যে চরম ভীতি বিরাজ করছে।

সন্মেলনকে কেন্দ্র করে পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মো. আসলাম হোসেন বলেন, সমাবেশকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলার অবনতি কিংবা কোনো উস্কানিমূলক বক্তব্য যাতে প্রদান করা না হয় সেজন্য পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে আছে। সমাবেশ ঘিরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। জনসাধারণের চলাফেরায় যাতে কোন বিঘ্ন না ঘটে সেদিকে লক্ষ রাখছে পুলিশ। সর্বোপরি সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।

১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এসপি/এনটি

উপরে